খেলা

বিপিএলের একুশে উদ্যাপন

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কোনো খেলা ছিল না বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের। বিপিএলের ছয় দলই চট্টগ্র��

বিপিএলে দুরন্ত রাজশাহী উড়ছে। কাল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানোর মিছিলেও এগিয়ে থাকল তারা। বেলা ১১টার দিকে শহীদ মিনারে তাদের উপস্থিতি শ্রদ্ধা জানাতে আসা বাকি সবাইকে চমকে দেয়। দুরন্ত রাজশাহীর বিদেশি ক্রিকেটাররাও প্রথমবারের মতো একুশে উদ্যাপন দেখে চমকিত হন।
শহীদ মিনারে ফুলেল শ্রদ্ধা জানানোর পর জিম্বাবুয়ের শন আরভিন বলেই ফেললেন, ‘এত মানুষ! এত ফুল! এভাবে মাতৃভাষাকে শ্রদ্ধা জানাতে আসছে সবাই…আমি মুগ্ধ।’
শহীদ মিনারে বিদেশি ক্রিকেটারদের শ্রদ্ধা জানাতে দেখে সাধারণ মানুষজনও আপ্লুত বোধ করে। অনেকে মুঠোফোন বা ক্যামেরায় পরিচিত ক্রিকেটারদের ছবি ধারণের জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়ে। দুরন্ত রাজশাহী শ্রদ্ধা জানানোর আধা ঘণ্টা পর একে একে বাকি পাঁচটি দল ও বিসিবির কর্মকর্তারা শহীদ মিনারে ভিড় করেন। বিপিএলের সংবাদ পরিবেশন করতে আসা ঢাকার সাংবাদিকেরাও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের ভিড়ে সবচেয়ে বেশি নজরে পড়েছে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের শহীদ মিনারে উপস্থিতি। যেমন রাজশাহীর খালেদ লতিফ ও ফাওয়াদ আলম এবং বরিশালের আহমেদ শেহজাদ। তাঁরাও শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। অন্য সবার মতো নগ্ন পায়ে মিনারের বেদিতে ওঠেন।
তবে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের কেউ এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তাঁদের কাছে হয়তো বিষয়টা স্পর্শকাতর। ১৯৫২ সালে একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে রাজপথে রক্ত ঝরেছিল রফিক-সালাম-জব্বারদের। এই রক্তাক্ত ইতিহাসে জড়িয়ে আছে পাকিস্তানও। কালের পরিক্রমায় সেই দিনটিই পেয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনে তাই ভিন্ন তাৎপর্য খুঁজে পাওয়াই স্বাভাবিক। সাধারণের কাছে এটি প্রশংসিতও হয়েছে।
বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান গাজী আশরাফ হোসেন শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে যেন এটাই বলতে চাইলেন, ‘আমরা দলগুলোকে প্রস্তাব করেছিলাম। তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে এখানে এসেছে। ক্রিকেটাররাও নিজেদের ইচ্ছায় এসেছে। এখানে আসার পর মাতৃভাষা বাংলা নিয়ে ও দিবসটি নিয়ে তাদের শ্রদ্ধা আরও বাড়বে বলে আমরা মনে করি। বিষয়টা তারা উপলব্ধি করবে। পাকিস্তানি ক্রিকেটাররাও বিষয়টা অনুধাবন করছে বলে আমার বিশ্বাস। তবে সেটা তারাই ভালো বলতে পারবে।’

Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: