অর্থনীতি

বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট যেভাবে মনোনীত হন

ডেস্ক রিপোর্ট:বহুজাতিক ঋণদানকারী সংস্থা বিশ্বব্যাংক প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৪৪ সালে ব্রেটন উডস সম্মেলনে প্রতিষ্ঠিত এই ব্যাংকটির সদর দফতরও ওয়াশিংটন ডিসিতে। এই সম্মেলনে আরেক বহুজাতিক ঋণদানকারী সংস্থা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলও (আইএমএফ) প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়া হয়। বিশ্বব্যাংকে আমেরিকান শেয়ার সবচেয়ে বেশি থাকায় বেশিসংখ্যক নির্বাহী পরিচালক নিয়োগ দেয়ার এখতিয়ার রয়েছে দেশটির এবং নির্বাহী পরিচালকদের মনোনয়নের ভিত্তিতে ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট নিয়োগ দেয়া হয়। এখন পর্যন্ত যে ১১ জন ব্যক্তিত্ব বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন, তারা সবাই ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। অন্যদিকে রীতি অনুযায়ী আইএমএফ প্রধানকে নিয়োগ দিয়ে থাকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।
আন্তর্জাতিক পুঁজির ও উন্নয়ন কর্মসূচির প্রধান তদারককারী প্রতিষ্ঠান বিশ্বব্যাংকে সবসময়ই আমেরিকান ব্যাংকার, রাজনীতিবিদ ও সাবেক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তাদের নিয়োগ দেয়া হয়। ড. ইউনূস যদি বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট হন, তবে তা হবে প্রতিষ্ঠানটির ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা এবং সে সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।
গতকাল সফররত ইইউ পার্লামেন্টের প্রতিনিধিকে শেখ হাসিনা বলেন, গ্রামীণ ব্যাংকের মতো বিশাল প্রতিষ্ঠান চালানোর বিপুল অভিজ্ঞতা রয়েছে নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের। উল্লেখ্য, এর আগে ২০১১ সালের ২ মার্চ বেশি বয়সের কারণ দেখিয়ে ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে গ্রামীণ ব্যাংকের প্রধানের পদ থেকে অব্যাহতি দেয় সরকার। এছাড়া পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন নিয়ে বর্তমানে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে বাংলাদেশের টানাপড়েন চলছে। প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে অর্থায়ন করার সিদ্ধান্ত বাতিল করেছে বিশ্বব্যাংক। আওয়ামী লীগের অনেক নেতা এজন্য ড. ইউনূসকে দায়ী করে বক্তব্য দিয়েছেন।
বিশ্বব্যাংকের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রবার্ট জোয়েলিকের মেয়াদ শেষ হবে আগামী জুনে। আমেরিকান রাজনীতিবিদ ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান গোল্ডম্যান স্যাক্সের সাবেক এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আরও পাঁচ বছরের জন্য দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার ইচ্ছা তার নেই। এপ্রিলে বার্ষিক সভায় নতুন প্রেসিডেন্ট নিয়োগ দেবে বিশ্বব্যাংক, মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ হচ্ছে ২৩ মার্চ।
Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: