খেলা

বিপিএলে ফিক্সিং: গ্রেপ্তার পাকিস্তানি রিমান্ডে

ঢাকা, ফেব্রুয়ারি ২৭ – বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের কিছু খেলায় স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার সন্দেহে এক পাকিস্তানিকে গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে (রিমান্ড) নিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতের নাম সাজিদ খান (৩৬)।তার বাড়ি পাকিস্তানের করাচিতে।

সোমবার তাকে ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হলে, দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নিরাপত্তা প্রধান কর্নেল এটিএম মেসবাহউদ্দিন সেরনিয়াবাত মিরপুর থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সাজিদকে আদালতে হাজির করে গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মো. মাইনুল তাকে সাত দিনের জন্য হেফাজতে চান। ঢাকার মহানগর হাকিম আতিকুর রহমান দুই দিনের হেফাজত মঞ্জুর করেন।

ওই আদালতের পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) উপ-পরিদর্শক হুমায়ূন কবির সাংবাদিকদের বলেন, “হেফাজতের আবেদন শুনানির সময় সাজিদের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিল না। তাই তার পক্ষে কোনো আবেদন করা হয়নি।”

বিসিবির নিরাপত্তা কর্মকর্তা সেরনিয়াবাত জানান, করাচির বাসিন্দা সাজিদ খান ঢাকায় আসেন ১০ ফেব্রুয়ারি। চট্টগ্রামে বিপিএলের খেলা শুরু হওয়ার পর থেকে তার ওপর নজর রাখা হচ্ছিল।

চট্টগ্রামে ১৮ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিপিএলের ম্যাচ চলে।

“তার গতিবিধি ছিল খুবই সন্দেহজনক এবং তাকে আমরা চট্টগ্রাম থেকে অনুসরণ করতে থাকি,” বলেন সেরনিয়াবাত।

খেলোয়াড়দের সাজঘরের ওপর ভিআইপি গ্যালারি থেকে খেলা দেখেন সাজিদ। প্রতিটি ছক্কা মারার পর পর তিনি পাকিস্তানে টেলিফোন করেন বলে সেরনিয়াবাত জানান। তিনি বলেন, কয়েকবার তিনি খেলোয়াড়দের সাজঘরেও ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন।

তিনি বলেন, “পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার আগে আমরা তাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিটের সফররত কর্মকর্তার কাছে নিয়ে যাই।”

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা তিন সপ্তাহ আগে অভিযোগ করেন যে, সাবেক একজন ক্রিকেটার তাকে ‘স্পট ফিক্সিং’র প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: