খেলা

বিপিএল বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে: মুশফিক

ঢাকা, ফেব্র“য়ারি ২৮ – বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রথম আসরের আয়োজন নিয়ে ভীষণ ক্ষুব্ধ মুশফিকুর রহিম। দুরন্ত রাজশাহীর অধিনায়কের মতে বিপিএল বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে।

মঙ্গলবার প্রথম সেমিফাইনালে বরিশাল বার্নার্সের কাছে হেরে যাওয়ার পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “বিপিএলে যা হচ্ছে তাতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে।”

“এই টুর্নামেন্ট বিশ্বজুড়ে টেলিভিশনে স¤প্রচারিত হচ্ছে। যারা টেলিভিশনে দেখছেন তারাও কিন্তু বুঝতে পারছেন টুর্নামেন্টটা কতটা অগোছালোভাবে হচ্ছে। চট্টগ্রাম কিংসের বিপক্ষে ম্যাচের সময় বরিশাল বার্নার্সকে বলা হয়েছিলো ১৬ ওভারের মধ্যে লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারলে তারাই সেমিফাইনালে যাবে। শর্ত পূরণ করে বরিশাল সেমিফাইনাল নিশ্চিতও করলো। অথচ পরদিন বলা হলো বরিশাল নয়, চট্টগ্রাম খেলবে সেমিফাইনালে।”

“এটা শুধু বাংলাদেশেই সম্ভব। কথাটা শুধু খেলোয়াড় হিসেবে নয়, মানুষ হিসেবেও বলছি। এটা সত্যিই ভীষণ লজ্জাজনক ঘটনা,” যোগ করেন তিনি।

মুশফিক আরো জানান, “সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত জানতাম সেমিফাইনালে আমাদের প্রতিপক্ষ বরিশাল। পরে জানলাম সেমিফাইনালে চট্টগ্রাম কিংসের বিপক্ষে খেলতে হবে আমাদের। এই তথ্য মাথায় নিয়ে রাতে ঘুমাতে যাই।”

“অথচ মঙ্গলবার সকালে উঠে জানলাম বরিশালের সঙ্গে খেলতে হবে। এভাবেই বিপিএল হচ্ছে। বাংলাদেশেই এটা সম্ভব। আসলে এটা আমাদের জন্য অস্বাভাবিক কিছু নয়, স্বাভাবিকই। আমরাও এটাকে স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছি,” যোগ করেন তিনি।

খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক ঠিকমতো না দেয়া নিয়েও অনেক প্রশ্ন আছে বিপিএল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এ নিয়েও জাতীয় দলের অধিনায়ক মুশফিকের মনে অনেক ক্ষোভ।

তিনি বলেন, “শুধু বাংলাদেশেরই নয়, অনেক বিদেশি ক্রিকেটারকেও এখনো পর্যন্ত কোনো টাকা-পয়সা দেয়া হয়নি। অথচ আমাদের প্রতিশ্র“তি দেয়া হয়েছিলো টুর্নামেন্টের শেষ দিকে অন্তত ৭৫ শতাংশ পারিশ্রমিক দিয়ে দেয়া হবে। কিন্তু সেই প্রতিশ্র“তি পালন করা হয়নি।”

ঠিক কত পেয়েছেন জানতে চাইলে মুশফিক বলেন, “এই ধরুন সব মিলিয়ে ৪০/৫০ শতাংশ।”

তিনি আরো বলেন, “বিপিএল থেকে আমাদের খেলোয়াড়দের অনেক কিছু শেখার ছিলো। তবে মাঠের বাইরের কথা যদি বলতে বলেন তাহলে বলবো, যারা প্রতিশ্র“তি ভঙ্গ করেছেন তাদের এটা নিয়ে ভাবা উচিৎ ছিলো। কারণ আমাদের পারিশ্রমিকের গুরুত্বও কম নয়। কিন্তু এ ব্যাপারে অনিশ্চয়তা দেখা দিলে ভবিষ্যতে ক্রিকেটাররা এই টুর্নামেন্টে আর খেলবেন কিনা তা নিয়ে আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে।”

সেমিফাইনালে খেলতে না পারার দুঃসংবাদ শুনে বিমানবন্দরে চলে গিয়েছিলেন বরিশাল বার্নার্সের অধিনায়ক ব্র্যাড হজ। সেখান থেকে তিনি শুধু ফিরেই আসেননি, দলকেও নিয়ে গেছেন ফাইনালে।

সংবাদ সম্মেলনে হজ বলেন, “আমাদের শেষ দুটি ম্যাচ দেখে থাকলেই আপনারা বুঝতে পারবেন আমাদের সেমিফাইনালে খেলাটা কতটা ন্যায্য।”

Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: