খেলা

জুয়া নয় ক্রিকেট খেলছি: বিসিবি সভাপতি

ঢাকা: বিপিএলকে জুয়ার আসর বলায় দুঃখ পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি আ হ ম মোস্তফা কামাল। ফ্রেঞ্চাইজি দল চিটাগং কিংসের মালিক সামির কাদের চৌধুরীর এমন মন্তব্যকে অন্যায় বলেই মনে করেন তিনি।

বিসিবি সভাপতি ওই কথার প্রেক্ষিতে বলেন,‘জুয়ার আসর তো আমরা বসাইনি, আমরা খেলছি ক্রিকেট। ক্রিকেট খেলার মাঠে বিদেশেও জুয়ার চেষ্টা চলে। আমাদের এখানেও জুয়ার চেষ্টা চলছিলো। একজন দেশি খেলোয়াড়ের অভিযুক্ত হওয়ার বিষয়ে তদন্ত হয়েছে। একজন বিদেশিকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়েছে।’

মোস্তফা কামারে মতে, ‘চিটাগং ফ্রেঞ্চাইজি হলো আমাদের স্টেক হোল্ডার। তিনি কি বলেছেন আমি জানি না। পত্রিকায় দেখলাম। যদি পত্রিকার বক্তব্য সত্যি হয়, তাহলে এটা খুবই দুঃখজনক। তারা হলেন ক্রিকেট বোর্ডের অংশিদার। তিনি আমাদের একজন উন্নয়ন  (ডেভলপমেন্ট) অংশিদার। এ ধরণের মন্তব্য করাটা আমি মনে করি উচিৎ হয়নি।’

আলোচনার টেবিলে না বসে চিটাগং কিংস আদালতে যাওয়ায় মনক্ষুণ্য হয়েছেন বিসিবি সভাপতি, ‘আমাদের সম্মানিত একজন ফ্রেঞ্চাইজি, আমি মনে করি কোর্টে যাওয়ার আগে আমার কাছে আসা উচিৎ ছিলো তাদের। আমরা একসাথে বসে বিষয়টি আলাপ আলোচনা করে একটা সিদ্ধান্ত নিতে পারতাম। আমি আবারও বলবো আমাদের যারা স্টেক হোল্ডার আছে তারা এবং আমাদের অভিন্ন লক্ষ্য হচ্ছে ক্রিকেট চালালো এবং ক্রিকেটকে সামনে নিয়ে যাওয়া।’

ভবিষ্যতে এধরণের ফ্রেঞ্চাইজির সঙ্গে চুক্তি রাখার বিষয়টিও ভেবে দেখা হবে বলে জানান তিনি, ‘আমি মনে করি ক্রিকেট বোর্ডকে আরও দায়িত্বশীল হওয়া দরকার ছিলো। তারা কতটুকু ক্রিকেটকে ভালোবাসে দেখা দরকার ছিলো। এই অভিজ্ঞতা হয়েছে আমি ক্রিকেট বোর্ডকে বলবো যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে। আগামীতে যারা ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট তাদেরকে বেছে নিতে হবে।’

দুরন্ত রাজশাহীর অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম বিপিএলের সমালোচনা করায় তাকে বিচারের কাঠগড়ায় তোলা হবে বলেও জানান বিসিবি সভাপতি, ‘মুশফিকুর রহিমের বিষয়টি প্রথমে বোর্ডে তোলা হবে। সে চুক্তিভুক্ত প্লেয়ার, কি বলতে পারে না পারে তা বলা আছে। ডিসিপ্লিনারি কমিটি তার বিষয়টি দেখবে।’

Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: