প্রবাস বাংলা

সেরা হাই স্কুলে ভর্তি: নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কম্যুনিটিতে আনন্দের ঢেউ

নিউইয়র্ক : এবারও নিউইর্কের বিপুল বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রী যুক্তরাষ্ট্রের সেরা হাই স্কুলে ভর্তির সুযোগ লাভ করেছে। ১ ও ২ মার্চ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর গোটা কম্যুনিটিতেই আনন্দ-উল্লাস চলছে। অভিভাবকরা মিষ্টি বিতরণ করছেন পরিচিতদের মাঝে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৯ ও ৩০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত টেস্টে নিউইয়র্ক সিটির ৭৭ হাজার ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেয় ৮টি সেরা হাই স্কুলে ভর্তির জন্যে। এরমধ্যে সুযোগ পেয়েছে মাত্র ৫৩০০ জন। এর উল্লেখযোগ্য একটি অংশ বাংলাদেশি।

অবশ্য  গত কয়েকবছর ধরেই এশিয়ান ছাত্ররা অধিকহারে এসব স্কুলে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করছে। কেবলমাত্র মেধার ভিত্তিতে ফলাফল জানানো হয়। সেরা ৮টি হাই স্কুলের বাইরেও রয়েছে বেশ কয়েকটি হাই স্কুল।

সে সবেও ভর্তির জন্য টেস্ট দিতে হয়। নিউইয়র্ক সিটি শিক্ষাবোর্ড জানিয়েছে, বারুখ কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থিত হাই স্কুলে সবচেয়ে বেশি ছেলে-মেয়ে আবেদন করেছিল। সুযোগ পেয়েছে মাত্র ১৭ ভাগ।

বারুখ কলেজ থেকে হাই স্কুল গ্র্যাজুয়েশনের হার শতভাগ এবং সকলেই সেরা কলেজ-ভার্সিটিতে ভর্তির সুযোগ লাভ করে। শিক্ষাবোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, অষ্টম গ্রেডের ৪৯ ভাগ ছাত্র-ছাত্রী তাদের পছন্দের হাই স্কুলে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। ৯.৬ ভাগ এর কোনো সুযোগই হয়নি হাই স্কুলে ভর্তি হবার।
নিউইয়র্ক সিটির সেরা ৩টি পাবলিক হাই স্কুল হচ্ছে স্টাইভ্যাসেন্ট, ব্রঙ্কস এবং ব্রুকলিন টেকনিক্যাল হাই স্কুল। এ ৩টি স্কুলে ভর্তির জন্যে বিভিন্ন মিডল ও জুনিয়র হাই স্কুলের সেরা ছাত্ররা টেস্টে অংশ নিতে পারে। যারা সেরাদের মধ্যে সেরা তারাই ভর্তির সুযোগ পায়।

এজন্যেই অভিভাবকরা উৎফুল্ল এবং আনন্দিত। স্মরণ করা যেতে পারে, নিউইয়র্ক সিটির শিক্ষাবিদ বাংলাদেশি ড. মনসুর খানের মালিকানাধীন খান’স টিউটোরিয়‍াল গত কয়েক বছর ধরে এসব স্কুলে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে। এর বাইরে মূলধারার ক্যাপলেনসহ বাংলাদেশি ও এশিয়ানদের কয়েকটির অবদানও অপরিসীম।

খান’স টিউটোরিয়ালের ৯২ ভাগ ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করেছে। এ টিউটোরিয়ালের প্রধান ড. মনসুর খান জানান, গত ১৫ বছর যাবৎ দেশের নতুন প্রজন্মকে সেরা স্কুলে ভর্তির সহায়তা করে আসছেন।

অতি সম্প্রতি বিশ্বে সর্বাধিক প্রচারিত ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল খান’স টিউটোরিয়ালের ওপর চমৎকার একটি প্রতিবেদন করেছে। সর্বশেষ আরেকটি রিপোর্টে নিউইয়র্ক টাইমস খান’স টিউটোরিয়ালের প্রশংসা করেছে।

উল্লেখ্য, খান’স টিউটোরিয়ালের প্রধান ড. মনসুর খানকে এবারের একুশে পদক প্রদান করা হয়েছে।
এদিকে ‘ক্যাপলেন’ থেকে শিক্ষা নেয়া ব্রুকলিন স্কুল ফর জার্নালিজম অ্যান্ড ল’র ছাত্র ইমরুল শাহেদ লিয়ন এবং ক্রিস্ট ম্যাকঅলিফ স্কুলের ছাত্রী আফসারা তাসনিম রাফা কৃতিত্বের সঙ্গে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে এবং তারা সেপ্টেম্বরে শুরুর নতুন শিক্ষাবর্ষে ব্রুকলিন টেকনিক্যাল হাই স্কুলে যাবে।

ইমরুল শাহেদ লিয়ন হচ্ছে বার্তা সংস্থা এনা’র সম্পাদক লাবলু আনসারের কনিষ্ঠ পুত্র। লিয়নের বড়ভাই নাফিজ ইমতিয়াজ শাকিল লিংকনও একই হাই স্কুল থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে গ্র্যাজুয়েশনের পর ফুলব্রাইট স্কলার হিসেবে বিশ্বের সেরা কলেজ/ভার্সিটির অন্যতম বস্টন কলেজ থেকে আসছে মে মাসে অ্যাকাউন্টস ও ফাইন্যান্স-এ গ্র্যাজুয়েশন করবে।

অপরদিকে কৃতি ছাত্রী রাফা হচ্ছে ব্রুকলিনের পেশাজীবী সারোয়ার জামিল মোস্তফা এবং পারভিন আক্তারের জ্যেষ্ঠ কন্যা।

Advertisements

About EUROBDNEWS.COM

Popular Online Newspaper

Discussion

Comments are closed.

%d bloggers like this: